আজ ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইংরেজী , শনিবার

জেনে নিন কম্পিউটার কেনার সময় কোন বিষয়ের প্রতি লক্ষ্য রাখবেন

মোঃ আনিসুর রহমান ভূঁইয়া আগস্ট ১৪, ২০১৪

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। সবাইকে সালাম ও শুভেচ্ছা জানিয়ে আরম্ভ করছি আমার আজকের পোস্ট। আজকের পোষ্টটি একটি অনুরোধের পোস্ট। অনেকেই আমার কাছে জানতে চান একটি কম্পিউটার কেনার জন্য কোন কোন বিষয়ের উপর আপনার লক্ষ্য রাখতে হবে। চলুন তবে সংক্ষেপে জেনে নিই কিভাবে আপনি আপনার জন্য কম্পিউটার বাছাই করে নিতে পারেনঃ

computer buying guide

কম্পিউটার কেনার আগে জেনে নিন

১। প্রথমত মনঃস্থির করুন কেন বা কি কাজের জন্য আপনি কম্পিউটার কিনতে চাচ্ছেন। এর উত্তরে প্রায়শই একটা সাধারণ উত্তর পেয়ে থাকি সেটা হল সাধারণ কাজের জন্য আমি কম্পিউটার নিতে চাই। কিন্তু কেনার পর দেখা যায় তাঁর কাজগুলো সে সেই কম্পিউটার এ করতে পারছেনা কেননা তাঁর সাধারণ কাজগুলো আসলেই সাধারণ কোন কাজ নয়। এ বিষয়ে একটু খোলাখুলি ভাবেই বলি, কম্পিউটার এর সাধারণ কাজ বলতে গননা, লেখালেখি করা, মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার করা (অর্থাৎ গান শোনা বা ভিডিও দেখা ইত্যাদি) গুলোকেই বুঝানো হয়ে থাকে কিন্তু ফটোশপে কাজ করা মোটেই সাধারণ কোন কাজের অন্তর্ভুক্ত হতে পারেনা। আর অসাধারন কাজের জন্য আপনার কম্পিউটারটিকেও অসাধারন হতে হবে। তাই কেনার আগে মনঃস্থির করে নিন আপনি আসলে কি কারণে কম্পিউটার ব্যবহার করতে চাচ্ছেন।

২। খুব বেশি প্রয়োজন না হলে আমার মতে ডেস্কটপ কম্পিউটার কেনাই যুক্তিযুক্ত কেননা ল্যাপটপ এর চেয়ে ডেস্কটপ কম্পিউটার ব্যবহার করে আপনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন। তবে প্রয়োজনের প্রেক্ষিতে আপনি ল্যাপটপ কেনার কথা ভাবতে পারেন।

৩। আপনার কাজ অনুযায়ী কম্পিউটার এর কনফিগারেশন প্রস্তুত করুন। যেমনঃ আপনি ফটোশপের কাজ করতে চাইলে আপনার কম্পিউটারের প্রসেসর এবং র‍্যাম তুলনামূলকভাবে বেশি নিতে হবে। সাধারনত কোয়াড কোর বা ডুয়েল কোরের সাথে ৪ জিবি র‍্যাম ব্যবহার করে বেশ ভালভাবেই আপনি ফটোশপের কাজগুলো করতে পারবেন ইনশা আল্লাহ্‌।

৪। কম্পিউটার এর যন্ত্রাংশ কেনার ক্ষেত্রে ব্রান্ডিংকে গুরুত্ব দেবার চেষ্টা করুন, এটি খুব বেশি গুরুতবপুর্ন না হলেও অনেকক্ষেত্রে এটি সহায়ক ভূমিকা পালন করে থাকে সেই সাথে যথাসম্ভব পরিচিত দোকান থেকে কম্পিউটার কেনার চেষ্টা করুন যাতে বিপদে সহজেই তাঁদের সাহায্য নিতে পারেন।

৫। মনিটরের ক্ষেত্রে আপনি আপনার কম্পিউটার রাখার ঘর এবং আপনার কাজের জন্য প্রয়োজনীয় মাপের মনিটর সাইজ নির্ধারন করুন। যেমন ভিডিও এডিটিং এর মত উচ্চতর দক্ষতার কাজে খুঁটিনাটি অনেক বিষয়ের দিকে লক্ষ্য রাখতে হয় বিধায় আপনার মনিটরটির সাইজ বাড়িয়ে নিতে পারেন অন্যথায় আপনার জন্য ১৯” মনিটর যথেষ্ট। তবে ১৬/১৭ ইঞ্চি স্কয়ার মনিটর সাধারণ একটি কম্পিউটার এর জন্য আদর্শ মনিটর বলে আমি মনে করি।

৬। হার্ডডিস্ক যতটা সম্ভব বাড়িয়ে নিন কেননা আপনি আজ নয় কাল আপনার কম্পিউটারটিকে সংগ্রহশালায় পরিণত করবেন J ।

৭। কেসিং নেবার সময় যথাসম্ভব কমদামী বা ঠুনকো ষ্টীলের কেসিং থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন। সস্তায় কেসিং না কিনে একটু ভাল মানের কেসিং নিলে আপনার জন্যই মঙ্গলজনক।

৮। বিদ্যুৎ বিভ্রাট আমাদের দেশে নতুন কোন সমস্যা নয় তাই বাধ্যতামূলকভাবে আপনার কম্পিউটার যন্ত্রাংশের তালিকায় ইউ পি এস এর নামটি যুক্ত করে নিতে পারেন।

৯। র‍্যামের ক্ষেত্রে প্রসেসরের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ র‍্যাম কিনুন এক্ষেত্রে আপনি বিক্রয় প্রতিনিধির সাহায্য নিতে পারেন।

১০। সর্বশেষ কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথাটি হল আপনার কাজের কম্পিউটারটি কেনার জন্য পর্যাপ্ত অর্থ যোগানের ব্যবস্থা করুন।

পরিশেষে একটি কথা জানিয়ে রাখা ভালো, কম্পিউটারের বাজার সদা পরিবর্তনশীল তাই কেনার আগে অবশ্যই কিছুদিন মার্কেটে ঘোরাঘুরি করে আপনার আইডিয়া স্বচ্ছ করে নিন এবং কম্পিউটার কেনার সময় ওয়ারেন্টির বিষয়াবলী সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন। আশা করছি বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রেখে কম্পিউটার কিনলে আপনি দীর্ঘদিন নিশ্চিন্তে কম্পিউটার ব্যবহার করতে পারবেন ইনশা আল্লাহ্‌।

আজ এ পর্যন্তই, ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন এই কামনায়-
মোঃ আনিসুর রহমান ভূঁইয়া
তাং – ১৪.০৮.২০১৪ ইং

আপনি আরও পড়তে পারেনঃ

logo

টেকপ্রিয়.নেট

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত, বিনা অনুমতিতে কোন লেখকের লেখা কপি না করার অনুরোধ জানানো যাচ্ছে
তবে সুত্র উল্লেখ সাপেক্ষে লেখা শেয়ার করতে পারেন। ধন্যবাদ।

যোগাযোগ

সাইট সম্পর্কে তথ্য, জিজ্ঞাসা, অভিযোগ ও অনুরোধ এর জন্য যোগাযোগ করুন

মোবাইল: ০১৭১৯২৫৯০৪৬